আরামে ঘুমাতে চাইলে এসব বাধা দূর করুন - Rajbari News | রাজবাড়ী নিউজ | ২৪ ঘন্টাই সংবাদ

Breaking

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Post Top Ad

Responsive Ads Here

Wednesday, January 2, 2019

আরামে ঘুমাতে চাইলে এসব বাধা দূর করুন


সুস্থ থাকার জন্য প্রতিদিন পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। কিন্তু নানা কারণে আমাদের অজান্তেই ঘুমে বিঘ্ন ঘটে। এ লেখায় তুলে ধরা হলো তেমন কিছু বিঘ্নের কারণ।
১. উজ্জ্বল আলো
বাড়িতে উজ্জ্বল আলো ব্যবহার করেন অনেকেই। উজ্জ্বল আলো পড়াশোনা কিংবা অন্যান্য কাজের জন্য প্রয়োজনীয়। কিন্তু এ উজ্জ্বল আলোই আবার ঘুমের বিঘ্ন ঘটায়। বিশেষ করে ঘুমের আগে কক্ষে যদি উজ্জ্বল আলো থাকে তাহলে ঘুম আসতে দেরি হয়। তাই ঘুমানোর আগে স্বাভাবিকভাবে ঘুম আনার জন্য কিছুক্ষণ অল্প আলোতে থাকা প্রয়োজন।
২. ক্যাফেইন
চা-কফির কিংবা ডার্ক চকলেটের ক্যাফেইন ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। ঘুমের সমস্যা হলে তাই ছয় ঘণ্টা আগে থেকেই ক্যাফেইন গ্রহণ করা বন্ধ করা উচিত। কফির প্রায় অর্ধেক পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে চায়ে। তবে এর তুলনায় আরও কম থাকে চকলেটে।
৩. শারীরিক অনুশীলন
ঘুমের আগে শারীরিক অনুশীলনের অভ্যাস অনেকেরই ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। হালকা অনুশীলনের ক্ষেত্রে এটি বড় কোনো সমস্যা নাও করতে পারে। তবে বেশি পরিশ্রমের অনুশীলন দেহের এনার্জির মাত্রা পরিবর্তন করে এবং ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। এক্ষেত্রে সমস্যা হলে, ঘুমের আগে অনুশীলন না করে তা দিনের অন্য কোনো সময়ে করা যেতে পারে।
৪. তাপমাত্রা
ঘুমানোর সময় কক্ষের তাপমাত্রা আরামদায়ক হওয়া অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। ঘুমের সময় দেহের তাপমাত্রা কমে যায়। ফলে সে তাপমাত্রার সঙ্গে মানানসই তাপমাত্রা রাখা প্রয়োজন।
৫. দেরি করে ঘুম
রাতে ঘুমের শুরুতে গভীর ঘুমের প্রবণতা দেখা যায়। পরবর্তীতে অবশ্য ঘুম কিছুটা পাতলা হয়ে আসে। রাতের ঘুমের তুলনায় সকালের ঘুম আরামদায়ক হয় না। এ কারণে আপনি যদি রাতে সময়মতো না ঘুমিয়ে দেরি করে ঘুমান তাহলে তা থেকে পর্যাপ্ত তৃপ্তি নাও আসতে পারে। ফলে ঘুমানোর পরেও ক্লান্তি থেকে যেতে পারে।
৬. শব্দ দূষণ
আশপাশের বহু ধরনের শব্দ আপনার ঘুমের সময় ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। বিশেষ করে আপনি যদি বড় কোনো রাস্তার ধারে কিংবা শব্দ দূষণপূর্ণ এলাকায় থাকেন তাহলে তা বড় সমস্যা তৈরি করতে পারে। এক্ষেত্রে দরজা-জানালা লাগিয়ে এবং প্রয়োজনীয় ভারি পর্দা ব্যবহার করে ঘুম নির্বিঘ্ন করতে পারেন।
৭. দিনের ঘুম
দিনের বেলায় ঘুমালে অনেকেরই রাতে ঘুমাতে অসুবিধা হয়। বিশেষত আপনি যদি দিনের দ্বিতীয়ার্ধে বেশি ঘুমান তাহলে তা রাতের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। তাই দিনের বেলা ঘুমালেও তা যেন বেশি না হয় সেজন্য মনোযোগী হতে হবে।
৮. স্ক্রিনযুক্ত গ্যাজেট
আপনার যদি ঘুমের আগে মোবাইল ফোন, ট্যাব, কম্পিউটার কিংবা টিভি দেখা অভ্যাস থাকে তাহলে তা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। মূলত স্ক্রিনের উজ্জ্বল নীল আলো ঘুম আসতে বাধা দেয়। এ কারণে ঘুমের কয়েক ঘণ্টা আগে থেকেই স্ক্রিন ব্যবহার বন্ধ করা উচিত।

Post Top Ad

Responsive Ads Here